খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ছে, আইন মন্ত্রণালয়ের সম্মতি

Share
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ানোর বিষয়ে মত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। খালেদা জিয়ার পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আজ বুধবার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ানোর পক্ষে মত দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি জানান, আগের শর্তে মুক্তির মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ানোর জন্য মতামত জানিয়েছেন তারা।এদিকে বুধবার সকালে সচিবালয়ে নিজের কার্যালয়ে আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, উনারা (খালেদা জিয়ার পরিবার) আরেকটা দরখাস্ত করেছেন, মেয়াদ বৃদ্ধির। সে দরখাস্ত আমার কাছে এসেছে। আমরা মতামত পাঠিয়ে দেব। সেই সিদ্ধান্ত জানতে পারবেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে। কবে নাগাদ সিদ্ধান্ত জানা যাবে প্রশ্ন করলে আইনমন্ত্রী বলেন, আজই যাবে ইনশাল্লাহ।
এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন করা হলো।

সর্বশেষ গত সেপ্টেম্বরে তার দণ্ডের কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত দেয় সরকার। সেই মেয়াদ ২৪শে মার্চ শেষ হবে। প্রতিবার একই শর্তে তাকে কারাগারের বাইরে থাকার অনুমতি দেয়া হয়েছে। শর্ত অনুযায়ী, মুক্ত থাকার সময়ে খালেদা জিয়াকে ঢাকায় নিজের বাসায় থেকে চিকিৎসা নিতে হবে এবং তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না।
দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে গতবছর ২৫শে মার্চ নির্বাহী আদেশে সাময়িক মুক্তি দেয় সরকার। দণ্ডের কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করা হলে তিনি কারামুক্ত হন। এরপর চার দফায় দুই বছর তার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ানো হয়।

Leave A Reply