নির্বাচনকেন্দ্রিক সংকট ঘনীভূত করবে নতুন ইসি: বাম জোট

Share

নবগঠিত নির্বাচন কমিশন (ইসি) নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে সৃষ্ট সংকট আরও বাড়িয়ে তুলবে বলে মত দিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট।

নেতারা বলেছেন, সরকার ঘনিষ্ঠ সাবেক আমলাদের নিয়ে গঠিত নতুন এই নির্বাচন কমিশন নির্বাচনকেন্দ্রিক সংকট সমাধান করবে না। বরং তা আরও ঘনীভূত করবে।

সোমবার বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়।

এতে বলা হয়, আশঙ্কা অনুযায়ী সরকারের আস্থাভাজন ও অনুগত ব্যক্তিদের নতুন নির্বাচন কমিশনে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। রাজনৈতিক মতৈক্য ছাড়া ঘোষিত এই নির্বাচন কমিশনের প্রতি জনগণের আস্থা রাখার কোনো অবকাশ নেই।

নেতারা বলেন, নির্বাচন কমিশনের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে নির্বাচনকালীন সরকার। বিদ্যমান অবস্থায় দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের কোনো সুযোগ নেই। সে কারণে দেশে অবাধ, নিরপেক্ষ ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের জন্য সরকারের পদত্যাগ ও নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ তদারকি সরকার গঠন জরুরি।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, বাসদের (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় নেতা মানস নন্দি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্কসবাদী) সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবির জাহিদ ও সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের সভাপতি হামিদুল হক।

Leave A Reply