সাকিব-মুজিবের ঘূর্ণিতে বরিশালের হ্যাটট্রিক জয়

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: সাকিব-মুজিবের ঘূর্ণিতে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ১৪ রানে হারিয়ে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখলো ফরচুন বরিশাল। ফরচুন বরিশালের এটি টানা তৃতীয় জয়। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ৮ম আসরের ১৬তম ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে বরিশালের ১৪৯ রানের পুঁজি গড়ে। জবাবে হাতে ২ বল রেখে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ১৩৫ রানে অলআউট হয়।

এদিন ক্রিস গেইলের সঙ্গে ওপেন করে মুনিম শাহরিয়ার। ২ বলে ১ রান করে আউট হন মুনিম। দ্বিতীয় উইকেটে ৪২ রানের জুটি গড়েন গেইল ও নাজমুল হোসেন শান্ত। ৩ ছক্কা ও এক চারে ১৯ বলে ২৫ রান করে মিরাজের দুর্দান্ত ক্যাচে সাজঘরে ফেরেন গেইল।

বিতর্কিত এডিআরএসের মাধ্যমে আউট হন শান্ত। ২৯ বলে ২৮ রান করেন শান্ত। চতুর্থ উইকেটে সাকিবের সাথে ৫৫ রানের জুটি গড়েন তৌহিদ হৃদয়। তিনি হাঁকান দুটি ছক্কা।

ব্যাট হাতে অধিনায়ক সাকিব সামনে থেকেই নেতৃত্ব দেন। ৩০ বলে অর্ধশতক হাঁকান তিনি। বাঁহাতি স্পিনারের নাসুমের টানা তিন বলে সাকিব হাঁকান তিনটি ছক্কা। তবে অর্ধশতক স্পর্শ করেই সাকিব বিদায় নেন মৃত্যুঞ্জয়ের শিকার হয়ে। সাকিবের ইনিংসে ছিল তিনটি করে ছক্কা ও চার।

চট্টগ্রামের ইনিংসের প্রথম ওভারেই উইল জ্যাকসকে এলবিডব্লিউ করেন মুজিব উর রহমান। দ্বিতীয় উইকেটে ৭৬ রানের জুটি গড়েন আফিফ হোসেন ধ্রুব ও শামীম হোসেন পাটোয়ারী। তিন চার ও দুই ছক্কায় ৩২ বলে ৩৯ রানের ইনিংস খেলে সাকিবের বলে বোল্ড হন আফিফ। ৩০ বলে ২৯ রানের ধীরগতির ব্যাটিং করেন শামীম।

আফিফ ও শামীমের বিদায়ের পর চট্টগ্রামের ব্যাটিং লাইনআপে ধ্বস নামে। ১১ রানের ভেতর পাঁচটি উইকেট হারায় চট্টগ্রাম। নাঈম ইসলাম ও আকবর আলি গোল্ডেন ডাকের শিকার হন। বেনি হাওয়েল করেন ৪ বলে ১ রান। সাকিবের বলে বিতর্কিত এলবিডব্লিউ হন নাঈম। একই ওভারে হাওয়েল ও আকবরকে বোল্ড করেন মুজিব। ৮১ রানে ৬ উইকেট হারায় চট্টগ্রাম।

সপ্তম উইকেটে ১৫ রানের জুটি গড়েন মেহেদী হাসান মিরাজ ও চ্যাডউইক ওয়ালটন। সাকিব নিজের শেষ ওভারে বোলিংয়ে এসেই ওয়ালটনকে বোল্ড করেন। আটে নামা মিরাজ লড়াই করেন ব্যাট হাতে। ডোয়াইন ব্রাভোর এক ওভারে দুইটি চার ও একটি ছক্কা হাঁকানোর পর বোল্ড হন তিনি। মিরাজের ব্যাট থেকে আসে ১৩ বলে ২৬ রানের ক্যামিও।

এক চার ও এক ছক্কায় ৩ বলে ১০ রান করে ম্যাচ জমিয়ে দিয়ে ক্যাচ আউট হন শরিফুল। দুই বল বাকি থাকতেই চট্টগ্রাম অল-আউট হয় ১৩৫ রানে। সাকিব ও মুজিব তিনটি করে উইকেট নেন। ব্রাভো ও রানা পান দুইটি করে উইকেট। বরিশাল জিতেছে ১৪ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ফরচুন বরিশাল: ১৪৯/১০ (১৯.১ ওভার)। সাকিব ৫০, শান্ত ২৮, গেইল ২৫; মৃত্যুঞ্জয় ৪/১২, শরিফুল ২/৯।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স: ১৩৫/১০ (১৯.৪ ওভার)। আফিফ ৩৯, শামীম ২৯, মিরাজ ২৬, ওয়ালটন ১৬; মুজিব ৩/৯, সাকিব ৩/১০, রানা ২/২১, ব্রাভো ২/৩৫।

ফল: ফরচুন বরিশাল ১৪ রানে জয়ী।

Leave A Reply