বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৪০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২ হাজার ৫৪৫

বাংলাদেশে সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) রেকর্ড ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মোট ৬৫০ জন মারা গেলেন। এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২ হাজার ৫৪৫ জন শনাক্ত হয়েছেন। আর ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪০৬ জন।
(৩১ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতরের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য তুলে ধরেন।
ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও নতুন দুইটি ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট ৫২টি ল্যাবে করোনাভাইরাসের পরীক্ষার সুযোগ হলো। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫২টি ল্যাবে মোট ১২ হাজার ২২৯টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ হাজার ৮৭৬টি। এ নিয়ে মোট ৩ লাখ ৮ হাজার ৯৩০টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো।
বুলেটিনে জানানো হয়, সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা করা নমুনার মধ্যে ২ হাজার ৫৪৫টি নমুনা করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট ৪৭ হাজার ১৫৩টি নমুনায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে রেকর্ড ৪০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এ পর্যন্ত মারা গেলেন ৬৫০ জন।

ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৪০৬ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এ নিয়ে মোট ৯ হাজার ৭৮১ জন সুস্থ হলেন। আক্রান্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২০ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

ব্রিফিংয়ের শুরুতেই ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, আজ বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, ধূমপায়ীসহ তামাকপণ্য সেবনকারীদের মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার হার বেশি। তামাকজাত পণ্য ব্যবহারে অন্যান্য রোগেও মৃত্যুর ঝুঁকি রয়েছে। তাই তামাকপণ্য সেবন থেকে সবাইকে বিরত থাকতে হবে।