‘ধর্মনিরপেক্ষ’ দেশে মুসলিম হত্যা হয় কেন: অমর্ত্য সেন

নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) প্রতিবাদীদের ওপর হিন্দু সন্ত্রাসীদের সহিংসতায় উত্তাল হয়ে উঠে ভারতের রাজধানী শহর দিল্লি।

সেখানে মুসলমানদের বাড়ি-ঘরগুলোকে টার্গেট করে জ্বালিয়ে দিচ্ছে হিন্দু সন্ত্রাসীরা।

এ হিংস্রতার হাত থেকে রেহায় পায়নি ৮৫ বছরের আকবরি বা গর্ভবতী শাবানা পারভীনের আসন্ন সন্তানও।

পৃথিবী দেখার আগেই পৃথিবীর বর্বরদের হাতে আক্রান্ত হতে হয়েছে অনাগত নিষ্পাপ শিশুকেও।

হিন্দু সন্ত্রাসীদের এ দাঙ্গায় আহত হন কয়েকশ’ মানুষ। দিল্লিতে এ সহিংসতা নিয়ে ‍উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন।

শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) শান্তিনিকেতনে এক আলোচনা সভায় অমর্ত্য সেন বলেন, ভারতের গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ নিয়েও চিন্তার কারণ আছে।

দিল্লিতে যা ঘটেছে ভারতবাসী হিসাবে আমি উদ্বিগ্ন। তিনি বলেন, দিল্লির আইনশৃঙ্খলা কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ন্ত্রিত।

সেখানে যদি মুসলমানদের ওপর অত্যাচার হয়, আর সেই অত্যাচার যদি পুলিশ আটকাতে না পারে বা প্রয়োজনীয় চেষ্টাও না করে, এমন অভিযোগ সঠিক হলে চিন্তা করার নিশ্চয়ই কারণ আছে।

‘ধর্ম নিরপেক্ষ’ দেশে মুসলিম হত্যা কেন- প্রশ্ন রেখে নোবেলজয়ী এই অর্থনীতিবিদ বলেন, যাদের নির্যাতন করা হচ্ছে আর যারা নিহত হচ্ছেন তাদের মধ্যে মুসলমান ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায় অনেক বেশি।

ভারত একটা ধর্মনিরপেক্ষ দেশ। সেখানে হিন্দু-মুসলমানে পার্থক্য করলে তো চলবে না।