করোনায় অন্যান্য রোগের চিকিৎসা নিশ্চিতে সরকারকে উকিল নোটিশ

করোনা ভাইরাসজনিত উদ্ভূত পরিস্থিতিতে চিকিৎসা সেবা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ মানুষ। তারা এক হাসপাতাল থেকে আরেক হাসপাতাল ঘুরে কোন চিকিৎসা পাচ্ছে না। এমতাবস্থায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর রোগীর চিকিৎসা দিতে একটি পরিপত্র জারি করে। ওই পরিপত্র কার্যকর চেয়ে সরকারকে উকিল নোটিশ দেয়া হয়েছে। বেসরকারি সংগঠন ল এন্ড লাইফ ফাউন্ডেশনের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের দুই আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. হুমায়ুন কবির পল্লব এবং ব্যারিস্টার মো. কাওসার আজ বুধবার ই-মেইলযোগে এই নোটিশ পাঠিয়েছেন। স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর এই নোটিশ দেয়া হয়।
এতে বলা হয়, নোটিশ প্রাপ্তির পর কার্যকর পদক্ষেপ না নেওয়া হলে হাইকোর্টে রিট করা হবে।
নোটিশে বলা হয়েছে, সারাদেশে চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ মানুষ। সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে কোন হসপিটালে গেলে ডাক্তার এবং হসপিটাল কর্তৃপক্ষ তাদেরকে সেবা দিচ্ছে না। এভাবে হাসপাতালের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরে বেড়াচ্ছে লাখ লাখ রোগী। ফলশ্রুতিতে তারা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর জারিকৃত একটি পরিপত্র করোনা পরিস্থিতিতে সকল রোগীকে যাতে সেবা দেয়া হয় সেজন্য একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে। সেই সার্কুলারের নির্দেশাবলী অনেক হাসপাতালগুলি বা তাদের ডাক্তারবৃন্দ পালন করছে না। ফলে অসংখ্য রোগী বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে। এমন

পরিস্থিতি কারো কাম্য হতে পারে না। তাই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট সার্কুলার অবিলম্বে কার্যকর করা দরকার। এটা কার্যকর হলে করোনা ছাড়া অন্যান্য রোগে আক্রান্ত মানুষ চিকিৎসা বঞ্চিত হবে না।

ব্যারিস্টার পল্লব ইত্তেফাককে বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সার্কুলার দিয়েছে। এতেই অধিদপ্তরের দায়িত্ব শেষ তা নয়। সার্কুলার কার্যকর করছে কিনা হাসপাতালগুলো সেটাও মনিটর করতে হবে। সেজন্য এই উকিল নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

ইত্তেফাক/বিএএফ