শনিবার করোনা পরীক্ষার কিট হস্তান্তর করবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের আবিষ্কৃত করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ শনাক্তকরণ কিট অনুমোদনের জন্য আগামী ২৫ এপ্রিল শনিবার সরকারের কাছে জমা দেবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। বিষয়টি নয়াদিগন্তকে নিশ্চিত করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এর আগে গত ১১ এপ্রিল কিট হস্তান্তর করা হতে পারে বলে জানিয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বৈদ্যুতিক বিপর্যয়ের কারণে কিটের পুরো ব্যাচটিই নষ্ট হয়ে যায়। তাদের নিজস্ব জেনারেটর চালু হতে আধা মিনিট সময় লাগে। ওই সময়ের মধ্যেই নষ্ট হয়ে যায় কিটগুলো। সে কারণে ঘোষিত সময়ে করোনা পরীক্ষার কিট সরকারের কাছে হস্তান্তর করা থেকে তাদের পিছিয়ে আসতে হয়েছিল।

তিনি জানান, ১৫ মিনিটে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিরুপনের জন্য গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র উদ্ভাবিত বহুল প্রত্যাশিত GR Covid-19 Dot Blot সরকারের চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য আগামী শনিবার ধানমন্ডিস্থ গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের মিলনায়তনে বাংলাদেশ সরকারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী নয়া দিগন্তকে বলেন, কোভিড-১৯ ডট ব্লট প্রজেক্টের আওতায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র প্রথম দফায় এক লাখ কিট উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে। বিজ্ঞানী বিজন কুমার শীল ও তার দল যে কিটটি উৎপাদনের চেষ্টা করছেন সেটি ১৫ মিনিটে মধ্যেই কোনো ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা নির্ণয়ে সক্ষম। করোনাভাইরাস শরীরে প্রবেশের ৭২ ঘণ্টা পর এই কিটটি তা শনাক্ত করতে পারবে।

তিনি আরো বলেন, বিদ্যুৎ সমস্যার কারণে কিট উৎপাদনের জন্য আমরা যে সময় নির্ধারণ করেছিলাম তা থেকে আমাদেরকে পিছিয়ে আসতে হয়েছে। তবে পল্লীবিদ্যুৎ চেয়ারম্যান নিজে এখন বিদ্যুৎ সরবরাহের বিষয়টি দেখছেন। শুল্ক বিভাগ ছুটির দিনেও জরুরি ভিত্তিতে কাঁচামাল ছাড় করেছে। তাই আশা করছি আগামী শনিবার সরকারের কাছে আমরা কিট হস্তান্তর করতে পারবো। সরকার কিট পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর অনুমোদন দিলে তা জনগণের কাছে পৌঁছে দেয়া হবে।