বিশ্ববাসীকে বাঁচাতে দ্রুত ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ব্যয় বহন করবেন বিল গেটস

কোভিড নাইন্টিনের ভ্যাকসিন আবিষ্কারে যত অর্থই লাগুক মানবজাতির কল্যানে তা খুশি মনে প্রদান করবেন বলে জানিয়েছেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। তিনি বলেন, যত দ্রুত সম্ভব এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার করতে হবে। আর এ জন্য অর্থ কোনো বাধা হতে পারে না। তার পরেও এই ভ্যাকসিন তৈরিতে কমপক্ষে ১৮ মাস সময় লাগতে পারে বলে জানান এই দানবীর।
গত কয়েক যুগ ধরেই বিশ্বব্যাপী মানবতার কল্যানে দুই হাতে অর্থ ব্যয় করেছেন বিল গেটস। এবার তিনি এগিয়ে এসেছেন মহামারি কোভিড-১৯ থেকে বিশ্ববাসীকে বাঁচাতে। ৬৪ বছর বয়স্ক এই বিজনেস ম্যাগনেট জানান, মহামারি মোকাবেলায় মানুষের প্রস্তুতির অভাব থাকায় এর কার্যকরি চিকিৎসা আবিষ্কারে এতো সময় লাগছে। তারপরেও যত দ্রুত সম্ভব এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারে যত অর্থ প্রয়োজন তিনি দেবেন। কিন্তু এতেও ১৮ মাস সময় লাগবে এই ভ্যাকসিন গণহারে মানুষের কাছে পৌছাতে।
স্বাভাবিকভাবে একটি ভ্যাকসিন তৈরিতে কমপক্ষে ৫ থেকে ৬ বছর সময় লাগে। সেখানে এই মহামারি থামানোর জন্য দ্রুততার সঙ্গে ভ্যাকসিন আবিষ্কারে কাজ করে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এতে কিছুটা কম পরীক্ষা শেষেই ভ্যাকসিনটি মানুষের ব্যাবহারের জন্য ছেড়ে দেয়া হবে।
বিল গেটস প্রতিশ্রুতি দেন, ভ্যাকসিনটি দ্রুত আবিষ্কারে যত অর্থই লাগবে তা আমি দেব। বিশ্বজুড়ে সরকারগুলোর থেকেও দ্রুত আমি চেকে সাইন করে যাব। আমার পক্ষে যা যা করা সম্ভব তাই করবো।