বিয়ানীবাজার ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে,র শামসুদ্দিন হাসপাতাল ওমেট্রোপলিটন পুলিশ এবং জেলা পুলিশকে ‘পি পি ই’ প্রদান

সিলেটের করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতাল এবং সিলেট মেট্রোপলিটন ও জেলা পুলিশকে দুই শতাধিক পার্সোনাল প্রটেকটিভ ইক্যুইপমেন্ট পিপিই প্রদান করেছে বিয়ানীবাজার ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পর্যায়ক্রমে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশকে ৬০টি, জেলা পুলিশকে ৬০টি এবং করোনা রোগীদের আইসোলেশন সেন্টার শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে ১০০টি পিপিই প্রদান করা হয়। এসময় সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাছির উদ্দিন খান, বিয়ানীবাজারের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমানের সম্বন্বয়ে একটি টিম প্রবাসীদের এই শুভেচ্ছা উপহার হস্তান্তর করেন।

বিয়ানীবাজার ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট ইউকের চার বারের সভাপতি মুহিবুর রহমান মুহিব, সভাপতি আব্দুল করিম নাজিম, সেক্রেটারটি ফরহাদ হোসেন টিপু এবং
কোষাধাক্ষ্য ইফতেখার আহমেদ শিপন এ উদ্যোগ গ্রহন করেন। এছাড়া করোনা ভাইরাস সংক্রমন মোকাবেলায় তারা ইতোমধ্যে বিয়ানীবাজারের দু’টি হাসপাতাল, পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন এবং রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে পিপিই প্রদান করেন।

সিলেটের পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া, সিলেটের এসপি ফরিদ উদ্দিন এবং হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. ইউনুসুর রহমান এসব পিপিই গ্রহন করেন। পিপিই প্রদান করায় পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ইংল্যান্ডে ট্রাস্টের দানশীল নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম, কবি ফজলুল হক, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপ-প্রচার সম্পাদক মস্তাক আহমদ পলাশ, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ নেতা মজির উদ্দিন, এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন, চ্যানেল এস এর সাংবাদিক হাসানুল হক উজ্জ্বল, মইন উদ্দিন মনজু, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা কামাল উদ্দিন ও মোতাহির হোসেন জাহির প্রমুখ।