পিপিআরসি ও বিআইজিডির গবেষণা :করোনায় সবচেয়ে ক্ষতির মুখে পড়বে নিম্ন আয়ের মানুষ

অকোভিড-১৯-এর কারণে বিশ্ব জুড়েই রয়েছে আক্রান্ত হওয়া আর প্রাণহানির আতঙ্ক। বাংলাদেশের সামনে এর চেয়েও বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াতে পারে অর্থনৈতিক ধাক্কা। গবেষণা বলছে, করোনাভাইরাসের কারণে অর্থনৈতিক সঙ্কটে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির মুখে পড়বে নিম্ন আয়ের মানুষ। সারা দেশেই বাড়তে থাকবে দারিদ্র্যের প্রবণতা।

পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি) ও ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব গভর্ন্যান্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (বিআইজিডি) এক যৌথ র‌্যাপিড রেসপন্স গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে।

গবেষণা বলছে, শহরের রিকশাচালক, দিনমজুর, গৃহপরিচারিকা, রেস্টুরেন্টকর্মী, ক্ষুদ্র ভাসমান ব্যবসায়ী, অটোচালকদের সঙ্গে গ্রামের কৃষক, জেলে, দোকানি, বিদেশফেরত মানুষেরা এই সময়ে সবচেয়ে বড় বিপদে পড়তে চলেছেন।

এই সঙ্কট থেকে পরিত্রাণের উপায় খুঁজতে পিপিআরসি ও বিআইজিডি যৌথভাবে র‌্যাপিড রেসপন্স রিসার্চ প্রকল্প শুরু করে। ১২ এপ্রিল এই জরিপের কাজ শেষ হয়। গ্রাম ও শহরের ৬ হাজার করে দেশের নিম্ন আয়ের মোট ১২ হাজার পরিবারের ওপর টেলিফোনের মাধ্যমে এই জরিপটি করা হয়েছে। ১৬ এপ্রিল পিপিআরসির নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. হোসেন জিল্লুর রহমান ও বিআইজিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ইমরান মতিন জরিপের ফল উন্মুক্ত করবেন।

পিপিআরসির নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. হোসেন জিল্লুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে এই গবেষণা নিয়ে আপাতত তিনি আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য দিতে চাননি। তিনি জানান, গবেষণায় করোনা পরবর্তী সময় কেমন হতে পারে, সে বিষয়ে কিছু ফাইন্ডিংস রয়েছে।

গবেষণা পরিচালনা করা দুটি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সঙ্কটকালীন নির্দিষ্ট প্রয়োজনগুলোকে নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ে প্রমাণসাপেক্ষে তুলে ধরা সম্ভব হবে।
এর জন্য ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।