করোনা দুর্যোগে নিয়োজিত চিকিৎসকগণ “জাতীয় বীর” এর মর্যাদা প্রাপ্য :আ স ম আবদুর রব

১৪ এপ্রিল , ২০২০
প্রেস বিজ্ঞপ্তি
করোনার দুর্যোগে চিকিৎসকদের অবদান ও আরো কার্যকর অংশগ্রহন নিয়ে জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও সাধারন সম্পাদক এ্যাড. ছানোয়ার হোসেন তালুকদার এক বিবৃতি প্রদান করেন।
“করোনা যুদ্ধের সম্মুখ ভাগে আছেন চিকিৎসক ও চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট সকল পেশার জনগন। দুর্যোগকালীন এই মুহূর্তে এদের মনোবল সমুন্নত রাখতে হবে। মুষ্টিমেয় কয়েকজন চিকিৎসকের ভুল বা অন্যায়ের জন্য পুরো চিকিৎসক সম্প্রদায়কে দায়ী করে তাদেরকে হতাশার গভীর খাদে ফেলে দেয়া যাবে না। কারও কারও শাস্তি বা বরখাস্তের খড়গ জাতীয় ভাবে প্রচার করা এই সম্মুখ যোদ্ধাদের মনোবল ভেঙ্গে দেয়ার সামিল। একই ভাবে বিদেশ থেকে চিকিৎসক আনার মতন কাল্পনিক আর হাস্যকর উদ্যোগের হুমকি দিয়ে তাদেরকে হতাশ আর সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়াটা হবে আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত। এটা কোনভাবেই কাম্য নয়।
আমাদের উচিৎ যথাযথ সুরক্ষার ব্যবস্থা করে বৃহত্তর চিকিৎসক সমাজকে জাতির এই দুর্যোগে একাত্ম করা, এবং জাতীয় ভাবে তাদেরকে উৎসাহিত করা। বিচ্ছিন্ন কারও কারও ত্রুটির জন্য পুরো সম্প্রদায়কে দায়ী করে জাতীয় ভাবে তাদেরকে ঘৃণা আর তুচ্ছতার শিকার করে ফেলা যাবে না।
লকডাউনে থেকেও পৃথিবীর সকল সভ্য দেশের নাগরিকবৃন্দ চিকিৎসকদের প্রতি সংহতি জানানোর জন্য বারান্দায় দাঁড়িয়ে বা জানালায় এসে হাততালি দিয়ে, বিলবোর্ড প্রদর্শন করে, অবনত মস্তকে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছে তাদেরকে অভিনন্দিত করছে। দুঃখ জনক হলেও সত্য আমরা তাদেরকে নিন্দা জানিয়ে, বরখাস্ত করে চাকুরীর ভয় দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে বলপূর্বক সেবা আদায় করা গ্রহনীয় হতে পারেনা।
আমরা আহ্বান জানাই জাতীয় জীবনের এই ক্রান্তিলগ্নে চিকিৎসক ও অন্য সকল পেশার কর্মী যারা নিজেদের জীবন বিপন্ন করেও এই সঙ্কটে অকুতোভয় যোদ্ধার মতন লড়ে যাচ্ছেন তাদের জাতীয় বীরের মর্যাদা দিয়ে তাদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করি। করোনা ভাইরাস সৃষ্ট মহামারীর কারনে দেশ আর জাতি এক অকল্পনীয় দুর্যোগের সম্মুখীন। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য সরকারের একক প্রয়াস কখনই ফলপ্রসূ হবে না। এর জন্য প্রয়োজন সমাজের সকল শ্রেণী , পেশা আর কর্মে নিয়োজিতদের সমন্বিত অংশগ্রহন। এই উদ্যোগ নেওয়ার দায়িত্ব একান্ত ভাবে সরকারের।
সমস্যাটি জনস্বাস্থ্য সম্পর্কিত বলে সবার আগে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্য কর্মী, বেসরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, চিকিৎসকদের পেশাগত সংগঠন (বি এম এ ) এবং এ জাতীয় সকলের প্রতিনিধিত্বশীল অংশগ্রহনের জন্য অনতিবিলম্বে জাতীয় প্ল্যাটফর্ম তৈরি করাহোক। জাতীয় নীতি প্রনয়ন ও সিদ্ধান্ত গ্রহন প্রক্রিয়ায় তাদের মতামত, অবদান আর কারিগরী জ্ঞান কে সম্পৃক্ত করা না গেলে করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে আমাদের চলমান যুদ্ধে আমরা জয়ী হতে পারবো না।
বার্তা প্রেরক-
ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আবুল মোবারক
দপ্তর সম্পাদক
মোবাইলঃ ০১৯৯১-০৫১৮৭০