করোনা সংকটে, জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছেন রব

স্বাধীনতার প্রথম পতাকা উত্তোলক ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব করোনা সংকটে, জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছেন ,এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান তিনি। বিবৃতিতে স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলক আ স ম আবদুর রব বলেন, করোনা মহামারিতে জাতি হিসেবে আমরা সঙ্কটের সম্মুখীন হয়েছি। এর তীব্রতা এবং বিস্তৃতি আমাদের জাতিকে এখন এক মৌলিক আর দীর্ঘ দিনের অমীমাংসিত প্রশ্নের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে। আমরা কি এ বিপত্তি মোকাবিলার জন্য আবার জাতি হিসেবে ১৯৭১ এর মতো ঐক্যবদ্ধ হতে পারি না? সরকার আর সরকারের বাইরের সবার এখন এককাতারবন্দি হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সামাজিক, রাজনৈতিক সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক সব ভেদাভেদ ভুলে এখন সবার একজোট হওয়ার সময়। তিনি বলেন, আমরা ৭১-এ এরকম ঐক্যই গড়ে তুলেছিলাম।

স্মর্তব্য আমরা সবার অস্ত্র হাতে যুদ্ধে যাই নি, দেশের ভেতরে থেকেও স্ব স্ব অবস্থান হতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছি। তেমনি আজও সবার রাস্তায় বেরিয়ে চিকিৎসাসেবা দিতে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে না, কায়মনোবাক্যে আমাদের এ প্রয়াসে নিজেকে সামিল করতে হবে। সরকার আর ক্ষমতাসীন দলকে এ উদ্যোগের কান্ডারি হতে হবে। তাদের সব রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক বা একক ব্যক্তি, সব শ্রেণী-পেশার জনগণকে একই প্লাটফরমে এসে এই বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য আহ্বান করতে হবে। রাজনৈতিক বিভেদ আমাদের প্রধান বিভাজক। তাই রাজনীতিবিদদের কাছে বিশেষভাবে এ আহ্বান পৌঁছাতে হবে যাতে ভেদাভেদের যে দেয়াল গড়ে উঠেছে, সবাই মিলে তা অপসারণ করে যেন এ সঙ্কট দূর করতে পারি।

অপরদিকে জাতীয় যুব পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক জনাব এস.এম.সামছুল আলম নিক্সন ও যুগ্ম আহ্বায়ক জনাব শফিকুর রহমান শফিক এক যুক্ত বিবৃতিতে সারা দেশের যুব পরিষদের নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে বলেন। আপনারা দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে অসহায়, খেটে-খাওয়া মানুষের পাশে যেভাবে আছেন, ঠিক সেই ভাবে এই দুর্যোগ শেষ না হওয়া পর্যন্ত, অবশ্যই সামাজি দুরত্ব বজায় রেখে মানুষের পাশে থাকবেন। আগামী দিনে দেশ থেকে বেকারত্ব বিদায় করতে, উপজেলা শিল্পাঞ্চল গঠনের আন্দোলনকে প্রতিষ্ঠিত করতে আপনাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রত্যাশা করি।