নিউক্লিয়াস-বিএলএফ’র প্রতিষ্ঠাতা এবং স্বাধীনতার রুপকার ও সশস্ত্র যুদ্ধের প্রধান সংগঠক সিরাজুল আলম খান শিগ্রই ঢাকার উদ্দেশ‍্যে রওয়ানা হচ্ছেন

নিউক্লিয়াস-বিএলএফ’র প্রতিষ্ঠাতা এবং স্বাধীনতার রুপকার ও সশস্ত্র যুদ্ধের প্রধান সংগঠক সিরাজুল আলম খান ঢাকার উদ্দেশ‍্যে রওয়ানা হচ্ছেন। আগামীকাল শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯) দুবাই-এর স্থানীয় সময় বিকেল ৪:৪৫ মিনিটে এমিরেটস্ এয়ারলাইনসের ফ্লাইটে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন, ইনশাআল্লাহ্। Flight Number হলো-EK 584.

জনাব সিরাজুল আলম খান (দাদা) শনিবার ৩০ নভেম্বর ২০১৯ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় সকাল ১০:৪০ মিনিটে এমিরেটস্ এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে করে দুবাই হয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন এবং রবিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকেল ৪:৫৫ মিনিটে তাঁর ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছানোর শিডিউল ছিলো
কিন্তু ঐদিনই নিউইয়র্ক থেকে দেশে ফেরার পথে বিমানে শ্বাসকষ্ট জনিত জটিলতার কারণে তিনি ভীষণ অসুস্থ পড়েন। তখন জরুরি ভিত্তিতে সিরাজুল আলম খান (দাদা)কে দুবাই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুবাই বিমান বন্দর থেকে তাঁকে সরাসরি হাসপাতালের ইমার্জেন্সিতে নেওয়া হয়। সেখান প্লেনে অসুস্থ হওয়ার কারনে এমিরেটস্ এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষ তাঁকে হসপিটালাইজড করেন।
আজ ১২ ই ডিসেম্বর ২০১৯ ইংরেজী দুবাইর সন্ধ্যায় দাদাকে দুবাই হসপিটাল থেকে রিলিজ দেয়া হয়। সকলে দাদার জন্য দো’আ করবেন ।
উল্লেখ‍্য যে জনাব সিরাজুল আলম খান বুধবার, ৩১ জুলাই, ২০১৯ নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় বিকেল ৩:২৫ মিনিটে নিউইয়র্ক এয়ারপোর্টে নিরাপদে অবতরণ করেছিলেন। তাঁর রাজনৈতিক শিষ্য শামসু ইউ আহমেদ শামীম তাঁকে নিউইয়র্ক এয়ারপোর্টে অভ্যর্থনা জানান।
আমেরিকাতে প্রচন্ড শ্বাসকষ্ট, কাশি, হৃদরোগ ও ফুসফুসে ইনফেকশন এবং উচ্চ রক্তচাপ (হাই ব্লাড প্রেসার) জনিত কারণে তাঁকে বেশ কয়েকবার জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালে ভর্তি করে নিবিড় পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছিলো। তাঁর শরীর এখনও পুরোপুরি সুস্থ নয়। চিকিৎসকরা তাঁকে পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে বলেছেন।