বাণিজ্যমন্ত্রী জানেন না পেঁয়াজের দাম কবে কমবে

ভারত থেকে গরু আমদানির বন্ধের পর বাংলাদেশ গরুর উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে, একইভাবে পেঁয়াজের চাষ শুরু হলে আগামী দু বছরের মধ্যে বাংলাদেশ পেঁয়াজ রফতানিকারক দেশে পরিণত হবে।এজন্য তিনি প্রত্যেকের বাড়ির সামনে পতিতজমিতে পেঁয়াজের চাষ শুরুর আহ্বান জানান।

রোববার জাতীয় সংসদে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে সংসদীয় কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদ এ আহ্বান জানান। তিনি জানান, পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যেের দাম নিয়ন্ত্রণে শিগগিরই দেশের বড়ো আমদানিকারকদের নিয়ে বৈঠকের সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী রমজানের আগেই দ্রব্যমূল্যে নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য পদক্ষেপ নেয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সরকারের ব্যার্থতা না খুঁজে পজিটিভ সাংবাদিকতা করার জন্য মিডিয়ার প্রতি আহ্বান জানান।
সংবাদ সম্মেলনে বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুন্সী বলেন, ভারতের উপর অতিনির্ভরশীলতার কারণে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।মিশর, উজবেকিস্তান ও তুরস্ক থেকে পেঁয়াজের আমদানি করতে হলে দাম পড়বে ৩৭/৩৮ টাকা। এখন পর্যন্ত বলা যাচ্ছেনা কবে দাম কমবে।তিনিও পেঁয়াজের চাষ অভ্যন্তরীণভাবে বাড়াতে পারলে বাজার নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হবে।তিনি বলেন, এ ক্ষেত্রে চাষীদের আকর্ষণীয় দাম পেতে হবে।