চমক দিয়ে মন্ত্রিসভা গঠন শুরু করলেন বরিস জনসন

কোনো যদি নয়, কিন্তু নয়- যোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে ব্রিটেনকে এগিয়ে নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বক্তৃতায় এ কথা বলেছেন বরিস জনসন। তিনি প্রথম দিনেই প্রথানুযায়ী তার মন্ত্রিসভা গঠন করতে শুরু করেছেন। এখন পর্যন্ত ১৭ জনের নাম জানা গেছে। বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান

অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন থেরেসা সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী সাজিদ জাভেদ। আর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এসেছেন প্রীতি প্যাটেল। অন্য ১৫ মন্ত্রী হলেন, পররাষ্ট্র : ডমিনিক র‌্যাব, দপ্তরবিহীন : মেইকেল গোভ, স্বাস্থ্য : ম্যাট হ্যানকক, বাণিজ্য : আন্দ্রে লিডসম, আন্তর্জাতিক বাণিজ্য : লিজ ট্রুস, পরিবেশ : থেরেসা ভিলিয়ার্স, শিক্ষা : গেভিন উইলিয়ামসন, অলোক শর্মা : আন্তর্জাতিক উন্নয়ন, পূর্ত ও পেনশন : আম্বার রুড, প্রতিরক্ষা : বেন ওয়ালেস, ব্রেক্সিট : স্টিফেন বার্কলে, সংস্কৃতি, গণমাধ্যম ও ক্রীড়া : নিকি মরগ্যান, গৃহায়ন ও স্থানীয় সরকার : রবার্ট জেনরিক, আইন : রবার্ট বার্কল্যান্ড।

এদিকে, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বক্তৃতায় বরিস জনসন ৩১ অক্টোবর ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের হয়ে আসার সিদ্ধান্তের কথা জানান। তিনি বলেন, যারা সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন, আমাদের নিয়ে নানা আশংকার কথা জানিয়েছিলেন, আবারও প্রমাণ হয়েছে তারাই ভুল। সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেয়ার। সঠিক নেতৃত্বের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। তিনি বলেন, আমার কাজ দেশ ও জনগণের সেবা করা।

এ সপ্তাহে নতুন ২০টি হাসপাতালের কাজ শুরুর ঘোষণা দিয়ে জনসন বলেন, ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের বাজেট নিশ্চিত করা হবে। শিক্ষা, সামাজিক নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন খাতে নতুন সরকারের পরিকল্পনা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।