হবিগঞ্জে শহীদ মিনার নির্মাণে জেলা প্রশাসনের একদিনের বেতন প্রদান

হবিগঞ্জে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য জেলা প্রশাসনে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের একদিনের সমপরিমাণ বেতনের টাকা প্রদান করেছেন। গতকাল দুপুরে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান তার কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণ কমিটির আহ্বায়ক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়ার কাছে বেতনের টাকা দেন। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মর্জিনা আক্তার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বীজেন ব্যানার্জি উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, স্বাধীনতার অনেক বছর পেরিয়ে গেলেও হবিগঞ্জে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণ হয়নি। বাধ্য হয়ে প্রতিবছর ২১শে ফেব্রুয়ারিসহ বিভিন্ন জাতীয় দিবসে বৃন্দাবন সরকারি কলেজের শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে আসছেন শহরবাসী। এতে বিড়ম্বনার শিকার হতে হয় সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীদের। যোগদানের পর এ অবস্থা দেখে জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন। শুরুতেই জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা শহীদ মিনার নির্মাণে একদিনের বেতন প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।

পরে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে অর্থ সংগ্রহ করে জোরালো গতিতে শুরু হয় নির্মাণ কাজ। বর্তমানে দিন-রাত দুই শিফটে চলছে নির্মাণ কাজ। আগামী ২১শে ফেব্রুয়ারি শহীদ দিবসে নবনির্মিত শহীদ মিনারে ফুল দিতে চান জেলা প্রশাসক। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান জানান, হবিগঞ্জ জেলা শহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নাই এটা দুঃজনক। আমি যোগদানের পর শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করি। শুরুতেই আমি বলেছিলাম কাজ শুরু করলে অর্থ সংগ্রহে কোনো সমস্যা হবে না। অনেকেই ব্যক্তিগতভাবেও সহযোগিতা করছেন। আশা করি যথা সময়েই কাজ শেষ হবে।