পাপুলের স্ত্রী ও কন্যার জামিন বাতিলে হাইকোর্টের রুল

কুয়েতের কারাগারে থাকা লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম ও কন্যা ওয়াফা ইসলামের জামিন কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। সোমবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আগামী ১০ দিনের মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ ও বিবাদীদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে দুদকের আবেদনে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশিদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। খুরশীদ আলম সাংবাদিকদের বলেন, আদালত আমাদের আবেদনের শুনানি নিয়ে তাদের জামিন কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে। এর আগে বৃহস্পতিবার পাপুলের স্ত্রী ও মেয়ের জামিন আবেদনে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তার নথি জালিয়াতির বিষয়টি তদন্ত করতে দুদককে নির্দেশ দেয় হাই কোর্ট। এর জন্য দুই মাস সময় দেওয়া হয়।

দুই কোটি ৩১ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ ও ১৪৮ কোটি টাকার অর্থ পাচারের অভিযোগে শহিদ ইসলাম পাপুল ও তার স্ত্রী, কন্যা ও শ্যালিকার বিরুদ্ধে গত বছর ১১ নভেম্বর মামলা করে দুদক।।