লন্ডনে বাংলাদেশ জাসদের কার্যকরী সভাপতি মইন উদ্দিন খান বাদল এম পি,র সার্বজনীন শোকসভা অনূষ্টিত

বীর মুক্তিযুদ্ধা, বাংলাদেশ জাসদের কার্যকরী কমিটির সভাপতি , জনাব মরহুম মইন উদ্দিন খান বাদল এম পি,৭ই নভেম্বর ২০১৯ইং ভারতে মৃত‍্যুবরন করেন । উল্লেখ‍্য যে তিনি চিকিতসার জন‍্য ভারতে গিয়েছিলেন।
লন্ডনের স্থানীয় একটি হলে ১লা ডিসেম্বর ২০১৯ইং রোজ রবিবার — যুক্তরাজ্য বাংলাদেশ জাসদের উদ্যোগে — মরহুম জনাব মইন উদ্দিন খান বাদল এম পির সর্বজনীন নাগরিক শোক সভা শোকসভা অনূষ্টিত হয়। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি জনাব শামীম আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক জুনেদুর রহমান জুনেদ এর সঞ্চালনায় সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলওয়াত করেন – বীর মুক্তিযুদ্ধা এবং ইউকে ন্যাপ সভাপতি জনাব আব্দুল আজিজ। সভার প্রধান অতিথি ছিলেন – যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী জেনারেল বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব , সাবেক ছাত্রনেতা জনাব সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক। সভাপতি জনাব শামিম আহমদ প্রয়াত নেতার বর্নাদ্ধ সংক্ষিপ্ত জীবনী বর্ননা করেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন — লন্ডন টাওয়ার হেমলেটের ডেপুটি স্পিকার – জনাব আহবাব হোসেন। আরও বিশেষ অতিথিবৃন্দ ছিলেন – বীর মুক্তিযোদ্ধা মইন উদ্দিন খান বাদল এম পি অনেক ঘনিষ্ঠ সহচর এবং বিশিষ্ট – বীর মুক্তিযুদ্ধা যথাক্রমে — ( ১) দেওয়ান গৌছ সুলতান (ইউকে বিশিষ্ট আওয়ামী লীগ নেতা)। (২) বীর মুক্তিযুদ্ধা জনাব, ইঞ্জিনিয়ার মিফতা ইসলাম , (৩) বীর মুক্তিযুদ্ধা জনাব খলিল কাজী (সাবেক কাউন্সিলর)। (৪) বীর মুক্তিযুদ্ধা আজিজুল কামাল। (৫) বীর মুক্তিযুদ্ধা মোঃ কাশেম। (৬) বীর মুক্তিযুদ্ধা জনাব লোকমান হোসেন। (৭) বীর মুক্তিযুদ্ধা ফয়জুর রহমান খান। (৮) বীর মুক্তিযুদ্ধা জনাব , আমান উদ্দিন। (৯) বীর মুক্তিযুদ্ধা জনাব এনামুল হক, (১০) বীর মুক্তিযুদ্ধা জনাব, সৈয়দ মবুদ। (১১)বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোঃ কাশেম। (১২) ইউকে জে এস ডি সভাপতি জনাব ছমির উদ্দিন। (১৩) বীর মুক্তিযুদ্ধা ইউকে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি সভাপতি জনাব অলি রহমান। বাবুল হোসেন – ইউকে প্রজন্ম একাত্তর। নুরুল আমিন – কানেক্ট বাংলাদেশ ইউকে। সেলিম আহমেদ খান – সাধারণ সম্পাদক -ইউকে যুবলীগ। লুৎফুর রহমান ছায়াদ – সহ প্রচার সম্পাদক যুক্ত রাজ্য আওয়ামীলীগ,। আফছার খান সাদেক – জয়েন্ট সেক্রেটারী লন্ডন আওয়ামীলীগ। ডক্টর আনিসুর রহমান প্রচার সম্পাদক লন্ডন মহানগর আওয়ামিলীগ। সাব্বির চৌধুরী – সাবেক ছাত্রনেতা, ইউকে বাংলাদেশ জাসদ। সুহেল আহমদ – সাধারন সম্পাদক, বাংলাদেশ জাসদ লুটন। মঞ্জুর চৌধুরী – ইউকে বাংলাদেশ জাসদ। শামিম আহমেদ , আব্দুর রহমান, আব্দুল মন্নান চৌধুরী, শাহ এনামুর রশিদ জুয়ে ল, ফাইজুল খান, ইউকে বাংলাদেশ জাসদ। এ ছাড়াও – এনামুল হক খান নেফা ( সাবেক সিলেট জেলা ছাত্রলীগের জয়েন্ট সেক্রেটারী ) আমির হাসান চৌধুরী ( সাবেক সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক) । মোঃ শওকত ( সাবেক সিলেট জেলা বাসদ ছাত্রলীগ নেতা ইউকে বাসদ নেতা। নারী নেত্রী ও বিশিস্ট কমিউনিটি একটি ভিক্ট ফেরদৌসী লিপি। নারী জোট নেত্রী জোৎস্না বেগম ও আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল হক জিলুসহ আরও অনেকে।

আরও উপস্থিত থেকে বক্তব‍্য রাখেন স্মৃতি আজাদ – ইউকে সাংস্কৃতিক কর্মী, রেহেনা বেগম – সহ সভাপতি নারী জুট ইনু জাসদ,মাহমুদুর রহমান সানুর -শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক — ইউকে জাসদ ইনু। অলি রহমান সভাপতি – ওয়ার্কাস পার্টি ইউকে। শোক সভায় সবাই জনাব মরহুম নামে প্রস্তাবিত কালুরঘাট ব্রিজের নামকরণেরবাংলাদেশ সরকারের কাছে জোর দাবী জানানো হয়। বিশেষ করে ইউকে আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক মরহুম মইন উদ্দিন খান বাদলের পার্লামেন্টে উনার শেষ বক্তব্য তিনির মোবাইলে রেকর্ড থেকে শুনান। মরহুম মইন উদ্দিন খান বাদল স্বাধীনতার মুল্যবোধ , গনতন্ত্র, ও অসাম্প্রদায়িকতার প্রশ্নে ছিলেন আপোশহীন । তিনি সর্বদাই মনে করতেন সাম্য, ন্যায় বিচার, প্রতিস্টা এবং গরীব মানুষের মুক্তিতে একমাত্র সমাজতন্ত্রের বিকল্প আর কিছু নেই। সেই লক্ষ্যে তিনি আজীবন কাজ করে গেছেন। মহান আল্লাহপাকের দরবারে সবাই তার আত্নার মাগফেরাত কামনা করেন। মহান আল্লাহপাক তাকে জান্নাতবাসী করেন। এই দোয়াই সবাই আল্লাহর দরবারে করেন। আল্লাহ এই একজন দেশ প্রেমিক মুক্তিযোদ্ধাকে জান্নাত নসীব করুন। আমিন।