গণঅভ্যুত্থানেই জনগণের বিজয় অর্জিত হবে — আ স ম আবদুর রব

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেছেন কর্তৃত্ববাদী শাসন, সামাজিক-রাজনৈতিক বিপর্যয়, সহিংসতা, দমন পীড়ন এবং দুর্নীতিগ্রস্থ-অযোগ্য সরকারের বিরুদ্ধে সারা বিশ^ব্যাপী বিক্ষোভ-গণ আন্দোলন-গণঅভ্যুত্থান সংঘটিত হচ্ছে। ইরাক, মিসর, সুদান, লেবানন, আলজেরিয়া, মরোক্কোসহ মধ্যপ্রাচ্যে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ-অভ্যুত্থান সংঘটিত হচ্ছে। তেমনি বাংলাদেশের বিদ্যমান স্বৈরশাসন এবং নিপীড়নের বিরুদ্ধে গণঅভ্যুত্থানেই জনগণের বিজয় অর্জিত হবে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাভিত্তিক রাষ্ট্র বিনির্মানের নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে।

জনাব রব বলেন, সরকার রাষ্ট্রের সকল প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে দিয়েছে। অর্থনীতি, রাজনীতি, আইন-শৃংখলাসহ সকল ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের উপর জনগণের কোন আস্থা নেই। সুতরাং এ সরকারের বিদায় এখন সময়ের ব্যাপার। জনাব রব বলেন, মেজর (অব:) এম এ জলিল, মোহাম্মদ শাহজাহান, নুর আলম জিকু তিন জনই ছিলেন সমাজ পরিবর্তনের লড়াকু সৈনিক। তিন জনই মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ নির্মাণে ঐতিহাসিক ভূমিকা রেখেছেন। তাদের তিন জনের অবদান জাতির অস্তিত্বের সাথে গ্রথিত। তাঁরা আমাদের অনুপ্রেরণার উৎস।

আজ বিকেল ৩ টায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি উদ্যোগে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ৬৫ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ (৪র্থ তলা), গুলিস্তান ঢাকায় অনুষ্ঠিত জেএসডি’র প্রয়াত তিন জন সভাপতি মেজর (অব:) এম এ জলিল, মোহাম্মদ শাহজাহান, নুর আলম জিকু এর স্মরণ সভায় সভাপতির বক্তব্যদাদনকালে জনাব রব এসকল কথা বলেন।

স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন জেএসডি স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য মোঃ সিরাজ মিয়া, মিসেস তানিয়া রব, শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, বিকল্পধারা বাংলাদেশ এর মহাসচিব এ্যাড. শাহ আহম্মেদ বাদল, সাবেক দায়রা জজ ও জেএসডি সহ-সভাপতি সা কা ম আনিছুর রকমান খান কামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলাল, জেএসডি নেতা মিজানুর রহমান মির্জা, এ্যাড. খলিলুর রহমান, এস এম রানা চৌধুরী, আবদুল্যাহ আল তারেক, এ্যাড. সৈয়দা ফাতিমা হেনা, এস এম সামছুল আলম নিক্সন, এ্যাড. জয়নাল আবদিন, নুরুল আবছার, মোশাররফ হোসেন, আবুল মোবারক, তৌফিক উজ জামান পীরাচা প্রমুখ।

জেএসডি’র স্টিয়ারিং কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঃ
আজ দুপুর ২ টায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি’র ষ্টিয়ারিং কমিটির এক সভা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের সভাপতি জনাব আ স ম আবদুর রব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভার প্রস্তাবে বলা হয়, হলি আর্টিজন বেকারিতে জঙ্গি হামলা মামলার রায় দ্রæত শেষ করা বিদেশীদের আস্থা অর্জনে সহায়ক হয়েছে। কিন্তু দেশে গণতান্ত্রিক অধিকারহীনতা, মানবাধিকার লঙ্ঘন, সন্ত্রাস-দুর্নীতি, লুট পাট সে আস্থাকে ¤øান করে দিয়েছে। জনগণের অধিকারকে দমন-পীড়নের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করার অপরাজনীতির কারণে সমাজ-রাষ্ট্রে যাতে সহিংসতার উত্থান না ঘটে সে জন্য জাতীয় সরকার গঠনের মাধ্যমে শ্রম-কর্ম-পেশার মানুষের অংশীদারিত্ব ভিত্তিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ও সমাজ বিনির্মান করার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা জরুরী।

সভায় আগামী ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য কেন্দ্রীয় কাউন্সিল সফল করার লক্ষ্যে সকল জেলা-মহানগর-উপজেলা-থানা-পৌরসভা কমিটির কাউন্সিল, কমিটি গঠন-পুন:গঠন করে কেন্দ্রে জমাদান এবং কেন্দ্রীয় কাউন্সিল এর জন্য কাউন্সিলর তালিকা সংগ্রহের জন্য সংশ্লিষ্ট সকল জেলার নেতৃবৃন্দকে নির্দেশ প্রদান করা হয়।

এছাড়াও আগামী ২ ডিসেম্বর বেলা ২ টায় বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর জেএসডি’র উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত প্রতিবাদ সভাকে সফল ও অংশগ্রহনের জন্যে দল-মত নির্বিশেষে সর্বস্তরের জনগণকে আহবান জানানো হয়।