দেশের ৪৯ হাজার ১৬২ নদী দখল হয়ে গেছে: নদী কমিশন

জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার সংসদীয় কমিটিকে জানিয়েছেন, সারাদেশে প্রায় ৪৯ হাজার ১৬২টি নদী দখল হয়ে গেছে। এ সকল নদী দখলমুক্ত করার জন্য কমিশন কাজ করছে। নদীগুলো দখলমুক্ত করতে গিয়ে যে সমস্ত মামলা হচ্ছে, সে গুলো দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য স্পেশাল আইনজীবী নিয়োগ করা হয়েছে। কমিটি পরবর্তী বৈঠকে দখল হওয়া নদীগুলোর ম্যাপসহ উপস্থাপন এবং হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী দখল হওয়া নদীগুলো উদ্ধারের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করে।

সংসদ ভবনে আজ অনুষ্ঠিত নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ত্রেয়োদশতম বৈঠকে তিনি এসব তথ্য জানান।
বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, বীর উত্তম। কমিটির সদস্য সাবেক নৌ-মন্ত্রী শাজাহান খান, রণজিৎ কুমার রায়, এম আব্দুল লতিফ, ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, মো. আছলাম হোসেন সওদাগর বৈঠকে অংশ নেন।

সংসদের গণসংযোগ বিভাগ জানায়, বৈঠকে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের এ পর্যন্ত গৃহীত কার্যক্রম/বাস্তবায়ন অগ্রগতি সম্পর্কে বৈঠকে উপস্থাপন করেন। এসময় কমিটির সদস্যরা জানতে চান, জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন যে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে গঠন করা হয়েছে, কমিশন সে উদ্দেশ্য পূরণে স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে কিনা? আইনে কোন পরিবর্তন/সংযোজনের প্রয়োজন আছে কিনা? এসব বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা শেষে কমিটি নদী কমিশনকে আলোচ্য বিষয়ে একটি খসড়া এবং দখল হওয়া নদীগুলোর ম্যাপসহ কমিটিতে উপস্থাপন করার জন্য সুপারিশ করে। এছাড়া বৈঠকে দখল হওয়া নদীগুলো উদ্ধারের জন্য হাইকোর্ট যে নির্দেশনা দিয়েছে সে অনুযায়ী (অগ্রাধিকার ভিত্তিতে) পরিকল্পনা গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন অগ্রগতি কমিটিকে অবহিত করার জন্য সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিডি প্রতিদিন