মূক্তিযুদ্ধের রাষ্ট্রকে জনগনের রাষ্ট্রে রুপান্তর করতে হবে:আ স ম আব্দুর রব

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি সভাপতি জনাব আ স ম আবদুর রব বলেছেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করতে জনগণের ভোটাধিকার সহ সকল শাসনতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হয়েছে। হত্যা, গুম-খুন, নির্যাতন-নিপীড়ন এবং অতিরিক্ত বল প্রয়োগের মাধ্যমে জনগণকে স্তব্ধ করার কৌশল রাষ্ট্রকে জনগণের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে। রাষ্ট্র এখন জনগণের নয়-রাষ্ট্র শুধু শাসকদের। রাষ্ট্রে শাসন ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন করে দেশ শাসনে শ্রম-কর্ম-পেশাজীবিদের অংশীদারিত্ব দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের রাষ্ট্রকে জনগণের রাষ্ট্রে রূপান্তর করতে হবে। জাতীয় সংসদের উচ্চকক্ষ, সারা দেশে ৮/৯ টি প্রদেশ, জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলসহ স্ব-শাসিত স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা প্রবর্তনের প্রস্তাব নিয়ে ১০ দফা ও ১৪ দফা প্রনীত হয়েছে। রাষ্ট্রের শাসনতান্ত্রিক কাঠামোগত সংস্কার ছাড়া বিদ্যমান ধ্বংসপ্রাপ্ত রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হবে না।

ভোটবিহীন সরকারের পদত্যাগ ও জাতীয় সরকার গঠনের মাধ্যমে জাতীয় রাজনীতিতে গুনগত পরিবর্তনের সূচনা হবে। আজ বিকেল ৩ টায় কিশোরগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত জেলা জেএসডি’র ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল এর উন্মুক্ত অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যদানকালে জনাব রব এ সকল কথা বলেন। কাউন্সিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেএসডি সহ-সভাপতি, ষ্টিয়ারিং কমিটির অন্যতম সদস্য মিসেস তানিয়া রব ও জেএসডি’র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, ষ্টিয়ারিং কমিটির সদস্য জনাব শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন।

কিশোরগঞ্জ জেলা জেএসডি’র সভাপতি এ্যাড. আবদুর রহমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কাউন্সিল সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন জামালপুর জেলা জেএসডি সভাপতি অধ্যাপক আমির উদ্দিন, কিশোরগঞ্জ জেলা বারের সভাপতি এ্যাড. মিয়া মোহাম্মদ ফেরদৌস, কিশোরগঞ্জ জেলা জেএসডি নেতা জনাব সাইফুল ইসলাম মোল্লা বকুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ লুৎফর রহমান, আবদুল কুদ্দুস, এ্যাড. রফিকুল ইসলাম, এ্যাড. সলিমুল হক, ফজলুল হক কাঞ্চন, এ্যাড. ইব্রাহিম মিয়া, হারুন অর রশিদ, আজিজুর রহমান তপন প্রমুখ।