শিক্ষকদের যৌন নির্যাতন: ১ সপ্তাহে গ্রেপ্তার ৭, অভিযুক্ত আরও ৫ জন

এক শ্রেণির শিক্ষকদের যৌন নির্যাতনের শিকার নারী শিক্ষার্থীরা মুখ খুলছেন। তাদের অভিযোগের ভিক্তিতে গ্রেপ্তার হয়েছেন বেশ কয়েকজন শিক্ষক। মামলাও হয়েছে। গত ১ সপ্তাহে ৭ জন শিক্ষক গ্রেপ্তার হয়েছে।

বান্দরবান : বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে মো. ইউনুছ (৩২) নামের এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে রাতে তার বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করা হয়। ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর বাবা রশিদ আহমদ জানান, ঘুমধুম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে তার মেয়ে। এর আগে অসুস্থতার কারণে সমাপনী মডেল টেস্ট পরীক্ষার তিনটি পরীক্ষা দিতে পারেনি। গতকাল ওই পরীক্ষায় পুনঃঅংশগ্রহণের জন্য স্কুলে যায় তার মেয়ে।

ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে একই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মফিজ উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। মফিজ উদ্দিন ধুরাইল ইউনিয়নের চকমোকামিয়া শহীদ খাজা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। গতকাল সোমবার তাকে গ্রেপ্তার করেছে হালুয়াঘাট থানা পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই শিক্ষার্থী মডেল টেস্ট পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়। পরে শিক্ষক মফিজ উদ্দিনের কাছে প্রবেশপত্র চাইতে গেলে তাকে শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ করে ওই ছাত্রী। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা মামলা করেন। মামলার পর পরই অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষকের সন্তানদের প্রাইভেট পড়াতে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে শহরের কাজলা এলাকায় সংস্কৃত বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক বীথিকা বণিকের বাসায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষকের ভাইকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম শ্যামল বণিক (৪৪)।
গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার বাসিন্দা হলেও তিনি বোন বীথিকা বণিকের বাসাতেই থাকতেন। বীথিকা বণিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হলের প্রাধ্যক্ষ। শ্লীলতাহানির শিকার ছাত্রীর বাবা ৯৯৯-এ ফোন করলে মতিহার থানার পুলিশ ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে।

যশোর : যশোরের কেশবপুরে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে এক শিক্ষককে এক বছরের কারাদÐ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। দÐপ্রাপ্ত ব্যক্তি উপজেলার সন্যাসগাছা মাঝেরপাড়া মসজিদভিত্তিক মক্তবের শিক্ষক ও সন্যাসগাছা গ্রামের মৃত মোজাম আলীর ছেলে আব্দুস সাত্তার। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মিজানূর রহমান রবিবার রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তাঁকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদÐ দেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ‘ধর্ষণের শিকার’ ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী তিন মাসের অন্তঃসত্ত¡া হওয়ায় পুলিশ এই ধর্ষণের অভিযোগে গত সোমবার দুপুরে এক মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তার শিক্ষকের নাম আবুল বাশার (৪০)। তিনি উপজেলার একটি দাখিল মাদ্রাসার গণিতের শিক্ষক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই শিক্ষার্থী আবুল বাশারের কাছে গণিত বিষয়ে প্রাইভেট পড়তেন। তিন মাস আগে ওই শিক্ষকের বাসায় কেউ ছিল না। এই সুযোগে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন আবুল বাশার। স্থানীয়রা জানায়, আবুল বাশার পাঁচ বছর আগে ওই মাদ্রাসায় যোগদান করেন। তিনি মাদ্রাসার পাশেই একটি বাড়িতে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে বসবাস করেন।

ঝালকাঠি: ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে জাকির হোসেন নামের এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত সোমবার সকালে নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। নির্যাতিত ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে জাকির হোসেনকে আসামি করে কাঁঠালিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। গ্রেপ্তারের পর তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়: ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. সানওয়ার সিরাজকে অ্যাকাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।
গত সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বিশেষ ক্ষমতাবলে এ সিদ্ধান্ত দেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) রহিমা কানিজ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রহিমা কানিজ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়নবিরোধী সেল অভিযোগ আমলে নিয়ে তদন্ত কাজ শুরু করেছে। সোমবার তাদের প্রথম সভা ছিলো। তদন্ত চলাকালীন সময়ে সানওয়ার সিরাজকে সকল অ্যাকাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার সুপারিশ করে তদন্ত কমিটি। সুপারিশে অনুমোদন দেন উপাচার্য। এর আগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর শিক্ষক সানওয়ার সিরাজের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির লিখিত অভিযোগ দেন একই বিভাগের এক ছাত্রী। পরে ২৩ সেপ্টেম্বর রাতে ২৬টি ঘুমের ওষুধ খেয়ে “আত্মহত্যার” চেষ্টা করেন ওই ছাত্রী। গুরুতর অবস্থায় তাকে সাভারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়।

খুলনা : খুলনার কয়রায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে লাঠি দিয়ে আঘাত করায় স্কুলশিক্ষক রুেহুল কুদ্দুসকে (৪০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ২৪ সেপ্টেম্বর বুধবার বিকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। শ্রেণিকক্ষে পাঠদানকালে শিশুটিকে আঘাত করা হয়।
ওই ছাত্রীর মামা জানান, স্কুল থেকে বাড়িতে ফিরে অসুস্থ হয়ে পড়লে মেয়েটিকে গত মঙ্গলবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা মেয়েটির কাছ থেকে বিষয়টি শুনে তার পরিবারকে জানায়। এ ঘটনায় থানায় মামলা হওয়ার পর ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়।

ঢাকা কমার্স কলেজ : ঢাকা কমার্স কলেজের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। নারী সহকর্মী ও ছাত্রীদের কাছে ওই অধ্যাপক একজন বিকৃত মানসিকতার মানুষ হিসেবে পরিচিত। কলেজের অধ্যক্ষ বলেছেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

অনেক নারী শিক্ষকের কাছে তিনি এক আতঙ্কের নাম। ছাত্রীরাও তাকে আতঙ্কের কারণ মনে করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে তার নানা কর্মকাণ্ড। অনেকেই অভিযোগ করেছেন তার বিরুদ্ধে। কলেজের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও কাজ হয়নি বলছেন কেউ কেউ। অন্য বিভাগের সহকর্মীরাও অধ্যাপক সাইদুর রহমানের কর্মকাণ্ডে ত্যক্ত-বিরক্ত। অভিযোগের বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি শিক্ষক সাইদুর রহমান। তার দাবি, তদন্তেই বেরিয়ে আসবে প্রকৃত সত্য।

গাইবান্ধা: গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগে তাঁতীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ওসমান আলীকে আটক করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনির এক ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে সাদুল্যাপুর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এর আগে দুপুরে বিদ্যালয় থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক ওসমান আলীকে আটক করেছে পুলিশ। ওসমান আলী উপজেলার ধাপেরহাট ইউনিয়নের ছোট ছত্রগাছা গ্রামের মৃত ছাদেক আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ওসমান আলীর
বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করে আসছিল একাধিক ছাত্রী। এরই ধারাবাহিকতায় গত মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ক্লাস চলাকালীন সময় পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ক্লাসের পড়া না হওয়ায় মারপিট করার ছলে তার স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ে ছাত্রীদের অভিভাবকরা প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। একপর্যায়ে এ ঘটনা নিয়ে বিদ্যালয়ে শালিস বৈঠক হয়। এতে শিক্ষক ওসমান আলীর পক্ষে-বিপক্ষে অবস্থান নেন উপস্থিত লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়।

মুরাদনগর : মুরাদনগর উপজেলা সদরের উম্মে হানি মহিলা মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের এক ছাত্রীকে (১০) যৌন হয়রানির অভিযোগে ওই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মাওলানা মো. হাসানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হাসান উপজেলা সদরের নিমাইকান্দি গ্রামের মৃত আব্দুছ ছাত্তারের ছেলে। যৌন হয়রানির শিকার ওই ছাত্রীর মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে গত সোমবার রাতে তাকে মাদ্রাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে ১০০ টাকা চুরির অভিযোগ এনে হেফজ বিভাগের ওই ছাত্রীকে তার অফিস রুমে ডেকে শরীরের স্পর্শকাতর বিভিন্ন জায়গায় হাত দেয় মাওলানা হাসান। ঘটনার পর মেয়েটি এক সপ্তাহ মাদ্রাসায় না গেলে তার মা তাকে মাদ্রাসায় যেতে জোর করার চেষ্টা করে। পরে ওই ছাত্রী মায়ের কাছে ঘটনা খুলে বলে। বিষয়টি জানার পর ছাত্রীর মা গত সোমবার রাতে মুরাদনগর থানায় এসে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর সোমবার রাতে মাওলানা হাসানকে তার মাদ্রাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

নীলফামারী : নারী সহকর্মীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় আটক নীলফামারীর সৈয়দপুর সরকারী কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সাখাওয়াৎ হোসেন খোকন পদত্যাগ করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার সৈয়দপুর কলেজের সভাপতি ও সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে তিনি পদত্যাগ পত্র দিয়েছেন। পদত্যাগ পত্রে অধ্যক্ষ নিজের স্বাস্থ্যগত কারণ দেখিয়ে তা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪ টার দিকে সৈয়দপুর শহরের শহীদ ক্যাপ্টেন সামসুল হুদা মৃধা সড়কের শহীদ স্মৃতি স্তম্ভ পরিষদ কার্যালয়ে সহকর্মী অধ্যাপিকা সুলতানা নওরোজ রুমিসহ (সমাজবিজ্ঞান)আপত্তিকর অবস্থায় জনতার হাতে আটক হন সৈয়দপুর কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সাখাওয়াৎ হোসেন খোকন। যা তাৎক্ষনিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভিডিও ও ছবি আকারে ছড়িয়ে পড়ে এবং সেদিনই বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে সংবাদ আকারে প্রকাশ পায়। এর পর থেকে শুরু হয় অধ্যক্ষ ও অধ্যাপিকার অপকর্মের বিচার ও পদত্যাগ দাবিতে কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল। শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষের কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দেয়। উত্তাল হয়ে উঠে কলেজ ক্যাম্পাসসহ পুরো শহর।

এমতাবস্থায় কলেজের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার কলেজে উপস্থিত হয়ে ঘটনা তদন্তের জন্য উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার, সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আহসান হাবিব ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রেহেনা ইয়াসমিন এই ৩ জনের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে দেন।

সূত্র : দৈনিক আমদের সময়, চ্যানেল আই, প্রথম আলো, নয়া দিগন্ত ও বাংলানিউজ