রসিকতা করে ট্রাম্প জিজ্ঞেস করলেন কোথায় আমার প্রিয় একনায়ক সিসি

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে গত মাসে প্যারিসে জি-৭ সামিটে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এধরনের প্রশ্নের অবতারণা করেন। ওই সময় একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে মার্কিন মিডিয়াটি বলছে, মিসরের সিসি’কে একজন ভাল মানুষ, মহান নেতা হিসেবে অভিহিত করার আগে তিনি জানতে চান, ‘হয়্যারস মাই ফেভারিট ডিক্টেটর? এধরনের প্রশ্ন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এমন এক সময়ে করলেন যখন মিসরে অসংখ্যা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে এবং এর পেছনে হোয়াইট হাউজের যোগসাজস রয়েছে বলে বলা হয়ে মার্কিন মিডিয়ার প্রতিবেদনে।

২০১৩ সালে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যামে মিসরের ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হন জেনারেল সিসি। মিসরের ইতিহাসে প্রথমবারের মত নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে কারাগারে ঠেলে দেয়া হয়। মানবাধিকার সংগঠনগুলোর হিসেবে ৬০ হাজার বন্দী রয়েছে মিসরের কারাগারগুলোতে। জেনারেল সিসি মুসলিম ব্রাদারহুডকে নিষিদ্ধ করা ছাড়াও সব বিরোধী রাজনৈতিক কর্মকা- নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। ৬ বছর কারাগারে আটক থাকার পর মোহাম্মদ মুরসির মৃত্যুর পর ব্রিটিশ পার্লামেন্ট বিষয়টিকে নিষ্ঠুর ও অমানবিক বলে অভিহিত করে। মার্কিন পররাষ্ট্রদফতরের মানবাধিকার প্রতিবেদনে মিসরের এসব ঘটনা উল্লেখ করা হলেও ট্রাম্প সিসিকে একজন কঠোর নেতা হিসেবে স্বীকৃতি দেন।