ফ্রান্সে চুমু খেতে বাধ্য করায় বাদশা সালমানের মেয়ের কারাদণ্ড

সৌদি বাদশাহ সালমানের মেয়ে রাজকন্যা হাসা বিনতে সালমানকে ১০ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ফ্রান্সের একটি আদালত। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৬ সালে তিনি তার অ্যাপার্টমেন্টে কাজ করতে আসা এক ব্যক্তিকে তার পায়ে চুমু খেতে বাধ্য করেছিলেন। সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের এই বোনের বিরুদ্ধে ওই ব্যাক্তিকে মারধরের অভিযোগও প্রমাণিত হয় আদালতে। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।
খবরে বলা হয়, কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাকে ১০ হাজার ইউরো জরিমানাও করেছে ফ্রেঞ্চ আদালত। অভিযোগকারী তার যে সাজা দাবি করেছিলেন তাকে তার থেকেও বেশি সাজা দেয়া হয়। মারধরের শিকার আশরাফ ইদ জানান, তিনি রাজকন্যার ঘরে গিয়ে ছবি তুললে তাকে রাজকন্যার পায়ে চুমু খেতে বলা হয়। এরপর নিজের দেহরক্ষী রনি সাইদিকে তাকে মারধর করার নির্দেশ দেন রাজকন্যা।
রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন ৪৩ বছর বয়সী হাসা বিনতে সালমান। তার দেহরক্ষি রনি সাইদিকেও ৮ মাসের কারাদণ্ড ও ৫ হাজার ইউরো জরিমানা করা হয়েছে।