পশ্চিমাদের দিন শেষ, চীন-ভারত ছাড়া কোনো ফোরাম অর্থপূর্ণ না, বললেন পুতিন

উন্নত রাষ্ট্রগুলোর জোট জি-৭ কে ইঙ্গিত করে বৃহস্পতিবার এমন মন্তব্য করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পুতিনকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, আমন্ত্রণ পেলে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিতব্য পরবর্তী জি-৭ সম্মেলনে যোগ দিবেন কিনা। গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি অবশ্যই পুতিনকে আমন্ত্রণ জানাবেন। এমন প্রশ্নের জবাবে পুতিন বলেন, জি-৭ নেতাদের বরং রাশিয়া আসা উচিত যেখানে ২০১৪ সালে জি-৮ এর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। বিবিসি, সিএনএন

সে সময় রাশিয়া এর বড় অংশীদার ছিলো। পরবর্তীতে তাদের বহিস্কার করা হয়।

পুতিনের মতে, এই মুহূর্তে জি-৭’র যে দশা, সেটি বৈশ্বিক সমস্যা সমাধানের উপযুক্ত না। সম্প্রতি, ফ্রান্সে জি-৭ সম্মেলন শেষে দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন প্রকাশ্যে বলেছেন, পাশ্চাত্যের আধিপত্যের দিন শেষ হয়ে আসছে। রাশিয়ার প্রতি পশ্চিমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পুনর্বিবেচনার আহ্বানও জানান তিনি।

সেটি উল্লেখ করে পুতিন বলেন, আমি ভারত ও চীন ছাড়া কোনো কার্যকর আন্তর্জাতিক সংস্থা কল্পনা করতে পারি না। বর্তমানে শিল্পোন্নত দেশগুলোর সংস্থা জি-৭ এর সদস্য হিসেবে আছে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি এবং জাপান। রাশিয়া ১৯৯০ সালে এই ফোরামের সদস্য হয়। তখন এর নাম হয় জি-৮। ২০১৪ সালে ইউক্রেন থেকে ক্রিমিয়া পৃথক হয়ে রাশিয়ার সাথে সংযুক্ত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মস্কোকে জি-৮ থেকে বহিস্কার করা হয়।

উল্লেখ্য, বর্তমানে চীন পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহৎ অর্থনৈতিক শক্তি। এর পরের স্থান দখল করতে যাচ্ছে ভারত। এই দুটি রাষ্ট্র ছাড়া জি-৭ কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারবেন না বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। সম্পাদনা : তৌহিদ এলাহী