জাতীয় পার্টি কী আবার ভাঙতে যাচ্ছে

গঠনতন্ত্র অনুযায়ী রওশন এরশাদকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গুলশানে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য আনিসুল হক মাহমুদ।। জিএম কাদেরকে কো -চেয়ারম্যান ও মশিউর রহমান রাঙাকে মহাসচিব বহাল রাখা হয়েছে।

আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, আগামী ছয়মাসের মধ্যে দলীয় সম্মেলন করে নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচন করা হবে। একইসাথে দলীয় কো-চেয়ারম্যান হিসেবে জি এম কাদেরকে তার সম্মান রক্ষারও আহ্ববান জানানো হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে। প্রেসিডিয়াম সদস্যদের সাথে আলোচনা না করে কোনো সিদ্ধান্ত না দেয়ারও আহ্বান জানান, আনিসুল হক মাহমুদ।

এর আগে বিরোধী দলীয় উপনেতা জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ বলেন, ‘পার্টিতে কী হচ্ছে? জাতীয় পার্টি কী আবার ভাঙতে যাচ্ছে? অতীতে কিন্তু জাপা ভেঙেছে। আসুন সবাই মিলে পার্টিটাকে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করি।’

সংবাদ সম্মেলনে সিনিয়র নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, সোহেল রানা, সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু, সংসদ সদস্য মজিবুল হক চুন্নু, সংসদ সদস্য নাসিম ওসমান, সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম, সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম ওমর, প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম ফয়সল চিশতী, মীর আবদুস সবুর আসুদ ও সফিকুল ইসলাম সেন্টু।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ জুলাই হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর ৪ দিন পর ১৮ জুলাই এক সংবাদ সম্মেলনে জিএম কাদেরকে জাপার চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা দেন দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা। এরপর ২৩ জুলাই জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান হিসেবে অস্বীকার করে বিবৃতি দেন রওশন এরশাদসহ দলের সাত জন সংসদ সদস্য ও দুই জন প্রেসিডিয়াম সদস্য। তবে, পরবর্তী সময়ে এরশাদের চেহলাম উপলক্ষে কয়েকটি মিলাদ মাহফিলে একসঙ্গে দেখা যায় রওশন এরশাদ ও জিএম কাদেরকে।