মি:করবিন গ্রীষ্মের অবকাশের প্রায় অব্যবহিত পরেই সরকারের উপর একটি অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসবেন

লেবার সেপ্টেম্বরের গোড়ার দিকে সকল ধরনের ভ্রমন স্থগিত করে দিয়েছে যা নিশ্চিত করে যে জেরেমি কর্বিন গ্রীষ্মের ছুটি থেকে এমপিদের ফিরে আসার কয়েক দিনের মধ্যে সরকারকে নামিয়ে আনার চেষ্টা করবেন।

টেলিগ্রাফটি আজ প্রকাশ করেছে যে লেবার সাংসদদের বলা হয়েছে আগামী মাসের প্রথম দুই সপ্তাহ সসমস্ত ভ্রমন সমস্ত বাতিল করতে হবে।

এটি নিশ্চিত করে দেখা যাচ্ছে যে মি:করবিন গ্রীষ্মের অবকাশের প্রায় অব্যবহিত পরেই সরকারের উপর একটি অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসবেন।

যতটুকু বুঝা যাচ্ছে অনাস্থা প্রস্তাবটি ৪ সেপ্টেম্বর নিয়ে আসার কথা , বিশ্বাস করা হয় ছুটি শেষ হওয়ার পরের দিন।

লেবার যদি সফল হয় তবে মিঃ জনসন সম্ভবত একটি সাংবিধানিক সঙ্কট শুরু করতে পারেন, ডাউনিং স্ট্রিট সূত্রে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে তিনি পদত্যাগ করতে অস্বীকার করবেন এবং পরিবর্তে ৩১ অক্টোবরের ব্রেক্সিট সময়সীমার পরে সাধারণ নির্বাচন করার আহ্বান করবেন।

কনজারভেটিভরা ব্র্যাকন এবং র‌্যাডনারশায়ার উপনির্বাচনে পরাজয়ের পর জনসনের বর্তমানে একটির সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে।

অক্টোবরে কোনও চুক্তি ছাড়াই ব্রিটেনকে ইইউ থেকে বের করে আনার প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনার বেশ কয়েকজন টরি এমপি মন্তব্য করেছিলেন, যা তাকে আরও অস্থিতিশীল করতে পারে।