কাশ্মীর নিয়ে ভারতের পদক্ষেপ নজরে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র

জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে ভারতীয় পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রদপ্তর জানিয়েছে, তারা গোটা পরিস্থিতির ওপরই নিবিড়ভাবে নজর রাখছে। একইসঙ্গে ভারত-পাকিস্তান দু’দেশকেই নিয়ন্ত্রণরেখায় শান্তি বজায় রাখতে বলা হয়েছে। রয়টার্স

মার্কিন পররাষ্ট্রদপ্তরের মুখপাত্র মর্গান অর্টাগাস সোমবার রাতের দিকে এক বিবৃতিতে বলেছেন, “জম্মু-কাশ্মীরে আটকের ঘটনা ঘটার খবর পেয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। কোনোভাবেই যাতে সেখানে ব্যক্তি অধিকার খর্ব না হয়। আমরা সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকেই নিয়ন্ত্রণ রেখায় শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষার আহ্বান জানাচ্ছি।”
সোমবারই ভারতীয় পার্লামেন্টের রাজ্যসভায় জম্মু-কাশ্মীরকে কেন্দ্রের শাসনে আনতে বিল পেশ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সেখানে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল এবং জম্মু-কাশ্মীরের প্রশাসনিক বিভাজনের সিদ্ধান্ত জানান তিনি।

এরপর ওইদিনই জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ সদস্য— চিন, আমেরিকা, রাশিয়া, ফ্রান্স এবং ব্রিটেনকে গোটা বিষয়টি জানিয়েছিল ভারত। তাদেরকে স্পষ্ট করে বলা হয়, বিষয়টি সংসদের বিবেচনাধীন এবং একেবারেই ভারতের অভ্যন্তরীন বিষয়। কোনো আন্তর্জাতিক আইন ভাঙা হয়নি।

সুশাসন, সামাজিক ন্যায়বিচার এবং জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখের আর্থিক উন্নয়নের স্বার্থেই এ পদক্ষেপ নিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সরকার। ফলে সোমবার বিকাল পর্যন্ত কোনো দেশই এ ব্যাপারে মুখ খোলেনি।