পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট জারদারি গ্রেফতার

পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারিকে গ্রেফতার করেছে দেশটির জাতীয় তদন্ত সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরো (ন্যাব)। ভুয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে অর্থ পাচারের একটি মামলার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকায় গতকাল তাকে গ্রেফতার করা হয়। সূত্র : ডন।

ইসলামাবাদের বাসভবন থেকে পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) এই সহ-চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের সময় ন্যাবের ১৫ সদস্যের একটি দলের সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তারাও ছিলেন। জানা গেছে, আসিফ আলী জারদারিকে একটি কালো গ্লাসের ল্যান্ডক্রুজারে করে রাওয়ালপি-িতে অবস্থিত ন্যাবের কার্যালয়ে নেওয়া হয়। ভুয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট মামলায় ইসলামাবাদের হাই কোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করেছিলেন জারদারি ও তার বোন ফারিয়াল তালপুর। সেই আবেদন বাতিল হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সাবেক এই পাক প্রেসিডেন্টকে গ্রেফতার করা হয়। তবে তার বোনকে গ্রেফতার করা হয়নি। পুলিশের কর্মকর্তারা বলেছেন, ‘চারটি ভুয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে ১৫০ মিলিয়ন রুপি পাচার করেছেন জারদারি ও তার বোন।’ গত বছরের জুলাইয়ে অর্থপাচারের একটি মামলায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে সাবেক এই পাক প্রেসিডেন্ট ও তার বোন ফারিয়াল তালপুরকে তলব করা হয়। ওই সময় দেশটির তদন্তকারী সংস্থা দ্য ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির (এফআইএ) বাণিজ্যবিষয়ক শাখা জারদারি ও তার বোনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে। পরে তাদের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ওই বছরের জানুয়ারির শুরুর দিকে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অর্থবিষয়ক পর্যবেক্ষক ইউনিট ১০টি ব্যাংকের হিসাব নম্বরে সন্দেহভাজন লেনদেনের তথ্য পেয়েছে। একটি বেসরকারি ব্যাংকে কমপক্ষে ২০টির মতো বেনামি হিসাব নম্বরে কোটি কোটি টাকা লেনদেন হয়। এর সবই কালো টাকা। ঘুষ ও কমিশন হিসেবে নেওয়া হয়েছে